শক্তিশালী কালবৈশাখীর সঙ্গে নিম্নচাপ-বন্যার শঙ্কা চলতি মাসে

এখনই ডেস্ক নিউজঃ
  • প্রকাশিত: ২ মে ২০২১, ৬:২৪ অপরাহ্ণ | আপডেট: ৩ মাস আগে

আগামী এক মাসের আবহাওয়ার আগাম পরিস্থিতি তুলে ধরতে আবহাওয়া অধিদফতরে অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

বৈঠকের তথ্য জানিয়ে আবহাওয়াবিদ শ ম সাজু জানান, প্রতি মাসের শুরুতে অধিদফতরের পরিচালকের সভাপতিত্বে আবহাওয়া বিশেষজ্ঞ কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এ বৈঠক থেকেই চলতি মাসের দীর্ঘমেয়াদি আবহাওয়ার পূর্বাভাস তৈরি করা হয়। এর সাথে আগের মাসের একটি পর্যালোচনাও থাকে।

গত মাসের পর্যালোচনায় দেখা গেছে, এপ্রিল মাসে উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন হলো সারা দেশে স্বাভাবিক অপেক্ষা ৭৯ শতাংশ বৃষ্টিপাত কম হয়েছে। চলতি মে মাসেও সারা দেশে স্বাভাবিক অপেক্ষা কিছুটা কম বৃষ্টিপাত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

স্বাভাবিক বৃষ্টিপাত বলতে প্রত্যেক বিভাগের জন্যে মাস হিসেবে আলাদা আলাদা পরিমাণকে বোঝানো হয়। যেমন মে মাসের জন্যে রাজশাহীতে ১৯৬ মি.মি., রংপুরে ২৬১ মি.মি., ঢাকায় ২৯২ মি.মি. বরিশালে ২৬০ মি.মি., চট্টগ্রামে ৩১০ মি.মি., খুলনায় ১৭৫ মি.মি., সিলেটে ৫১০ মি.মি., ময়নসিংহে ৩৮০ মি.মি. বৃষ্টিপাতকে স্বাভাবিক বৃষ্টিপাত বোঝানো হয়েছে।

আবহাওয়ার দীর্ঘমেয়াদি পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, এ মাসে বঙ্গোপসাগরে এক থেকে দুটি নিম্নচাপ সৃষ্টি হতে পারে। এর মধ্যে একটি ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হতে পারে। আর দেশের উত্তর ও মধ্য অঞ্চলে দুই থেকে তিনদিন বজ্র ও শিলাবৃষ্টিসহ মাঝারি অথবা তীব্র কালবৈশাখী ঝড় বয়ে যেতে পারে। এছাড়া দেশের অন্যান্য অঞ্চলে ৫ থেকে ৭ দিন বজ্রসহ শিলাবৃষ্টি ও হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কালবৈশাখী ঝড় হতে পারে।

আর মে মাসে দেশের পশ্চিম অঞ্চলে একটি দাবদাহ বয়ে যেতে পারে। যার তাপমাত্রা হতে পারে ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস থেকে বেশি এবং সারা দেশে মৃদু থেকে মাঝারি দাবদাহ বয়ে যেতে পারে।

নদনদীর অবস্থায় বলা হয়েছে, মে মাসে উত্তর অঞ্চল ও উত্তর পূর্ব অঞ্চলের কিছু স্থানে ভারী বৃষ্টিপাতের প্রেক্ষিতে স্বল্প মেয়াদি আকস্মিক বন্যার পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে।

কৃষি আবহাওয়ায় বলা হয়েছে, মে মাসে দৈনিক গড় বাষ্পীভবন ৪ দশমিক ২ মি.মি. থেকে ৫ দশমিক ২৫ মি.মি. এবং গড় উজ্জ্বল সূর্যকিরণকাল ৬ দশমিক ৫ থেকে ৭ দশমিক ৫ ঘণ্টার মধ্যে থাকতে পারে।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...

কারিগরী সহায়তায়: নি-টেক